Subscribe For Free Updates!

We'll not spam mate! We promise.

Tuesday, October 10, 2017

মিলনে স্থায়ীত্ব বাড়াতে চান? জেনে নিন কি খাবেন…

মিলনে স্থায়ীত্ব বাড়াতে চান? জেনে নিন কি খাবেন- অনেক খাবার রয়েছে যা শারীরিক শক্তি বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে। সেরকম কিছু খাবারের নাম নিচে উল্লেখ করা হল:

১.দারুচিনি: স্বল্প সময়ে যৌন শক্তি বৃদ্ধি করার জন্য দারুচিনির গুরুত্ব অপরিসীম এবং এটি সবার কাছে সুপরিচিত। বিশেষ করে পুরুষের যৌন দূর্বলতা দূর করে যৌন শক্তি বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে।
বিছানায় যাওয়ার আগে দুই এক টুকরা দারুচিনি আপনার চা কিংবা কফিতে মিশিয়ে খেতে পারেন, তাতে কম সময়ের মধ্যে ফলাফল আসবে বলে বিজ্ঞানীরা মনে করেন। এর কোন অপকারিতা নেই।
২. মিষ্টি কুমড়া: আজকাল বাজারে সচরাচর পাওয়া যায়। গবেষনায় বলা আছে যে, শরৎকালের মিষ্টি কুমড়া শুকিয়ে তা দিয়ে এক জাতীয় মশলা তৈরি করে খেলে শারীরিক সম্পর্কের স্থায়িত্ব ও কামোদ্দীপনা বৃদ্ধি পায়। কুমড়া দিয়ে তৈরি মশলার ঘ্রাণে পুরুষ কিংবা নারীর যৌন আকর্ষন বৃদ্ধি পায়।
৩.ডুমুর জাতীয় ফল: এ ফল শুধু কামোদ্দীপনা বৃদ্ধি করে তা নয় বরং এটি অনেকেরই প্রিয় ফল। এটি দীর্ঘস্থায়ী মিলনে বিশেষ ভুমিকা পালন করে। যৌন দুর্বলতা, অস্তষ্টি, স্থায়িত্ব সমস্যাসহ নানান শারীরিক সমস্যা দূর করে এবং শক্তি বৃ্দ্ধিতে ব্যপক ভুমিকা পালন করে।
৪.চকোলেট: এটি বাচ্চাদের প্রিয় খাবার হলেও রোমান্টিক খাবার হিসেবে এটি বিশেষ গুরুত্ব বহন করে। এটি যে শুধু রোগ প্রতিরোধ করে তা নয় এতে রয়েছে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট নামক উপাদান আছে যা হৃদয়কে সতেজ রাখে।
মানুষ প্রেমে পড়ার সময় যে বিশেষ অনুভূতি অনুভব করে তা সুস্বাদু চকোলেট খেলে অনেকটা পাওয়া যায়। তাছাড়া মেয়েরা চকোলেট খেতে খুবই পছন্দ করে।



নারীর কি পুরুষের মতো বীর্যপাত হয় ? জেনে নিনারীর যোনিমুখের দু’পাশে বিশেষ গ্রনথি আছে । কামোত্তেজনার সময় এই গ্রনথি থেকে এক রকম তরল রস নির্গত হয়, যা কিনা সারা যোনি-মুখকে ভিজিয়ে পিচ্ছিল করে দেয়, এর ফলে পুরুষের লিঙ্গ তার গভীরে প্রবিষ্ট করতে সুবিধে হয় ।তরে বাইরে থেকে এই গ্রনথি দৃশ্যতনয়, চামড়ার আড়ালে ঢাকা থাকে ।কিন্তু যোনিমুখে রস নিঃসরণ সরাসরি চোখে দেখা যায় । সবসময় এই রস নিঃসৃত হয় না । কেবল যখনপ্রবল কামোত্তেজনা সূষ্টি হয়- তখনি বার্থোলিন গ্রনথি এই রস সৃষ্টি করে । নারীর এই কামরসের মতো পুরুষের কামোত্তেজনার প্রথম অবস্হায় এক ধরনের তরল রস নিঃসরন হয় । অনেকের ভুল ধারনা আছে, সেই রসের মধ্যে শুত্রূবীজানু থাকে । আসলে তাদের সেই ধারনা ভুল । সেই রসে কোন শুত্রূবীজানু থাকে না ।আবার নারীদেহের এই কামরসের সঙ্গেডিমবোকোষের কোন সস্পর্ক নেই । তবে একে যে অন্যের সহায়ক এ কথা বলা নিস্পয়োজন । অনেকেই বলে থাকেন, রতিক্রিয়া শেষে পুরুষের মতো কি নারীর যোনি থেকেও বীর্যপাত ঘটে ? এক কথায় এর জবাব হল’না ।’ মেয়েদের কোনো বীর্যপাত হয় না ।
তাদের বীর্য হলো ডিমবোকোষ ।

                                                                                                                                                                                                                                                                                             তবে মানুষের মনে এ কথা জাগার কারনহলো, যৌন-মিলনের ইচ্ছা জাগলে কিংবা মিলনে প্রবৃত্ত হলে,বিশেষ করে পুরুষের লিঙ্গ সঞ্চারনের ফলেতাদের যোনিপথে যে কামরস নিঃসৃত হয়, অনেকেই ভুল করে সেই রসকে বীর্য বা শুক্র বলে ধরে নেয় । আর এধরনের রস-নিঃসরন পুরুষের লিঙ্গ-নালী থেকেও বেরিয়ে থাকে । নারী-দেহে এই রস ক্ষরন রতি উত্তেজনা থাকা পর্যন্ত কম বেশী বর্তমান থাকতে দেখা যায়

নারীদের যৌনি চোষার বিষয়ে কিছু তথ্য জেনে নিন

নারীদের যৌনি চুষলে তারা অসাধারন যৌন অনুভূতি অনুভব করে। তবে, সেক্সের শুরুতেই নারীদের যোনিতে চুমু না খেয়ে তার যৌন কাতর স্থানগুলোতে (স্তন, যোনি, নিতম্ব, নাভী ইত্যাদি) চলে গেলে তার ধারনা হতে পারে যে আপনি তাকে টাকা দিয়ে ভাড়া করে দ্রুত সেই টাকা উসুল করার চেষ্টা করছেন। গভীরভাবে ভালোবাসার সাথে সঙ্গিনীকে চুমু খাওয়া দুজনের জন্যই প্রকৃতপক্ষে এক অসাধরন যৌনানন্দময় সেক্সের সূচনা করে।
অনেকেই দাড়ি না কামিয়ে সেক্স করেন, এই মনে করে যেআসল কাজ তো আমার হাত আর লিঙ্গের! কিন্ত যখন আপনার সঙ্গিনীকে চুমু খাবেন, তার স্তন চুষবেন, তার সারাদেহে জিহবা বুলাবেন এবং বিশেষ করে যখন নারীদের যোনি চুষবেন তখন আপনার ধারালো খোচা খোচা দাড়ি বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আপনার সঙ্গিনীকে আনন্দ নয় বরং অসস্তি ও ব্যথা দেবে। তাই সেক্সের আগেভালোমত দাড়ি কামিয়ে নেয়া উচিত

অনেক ছেলে নারীদের যৌনি চোষাটা ঘৃন্য মনে করলেও বেশির ভাগ ছেলেই একবার মুখ দিয়ে সেখানের স্বাদ অনুভব করার পর থেকে এর পরতি চরমভাবে আসক্ত হয়ে পড়ে। এমনকি যারা যৌনি মুখ দেয়ওনা তারাও অন্তত হাত দিয়ে হলেও মেয়েদের সবচাইতে গোপন স্থানটিকে বারবার আদর করার লোভ সামলাতে পারেন না। সেটা ঠিক আছে। কিন্ত অনেকেই এর প্রতি এতটাই আসক্ত হয়ে পড়ে যে দেখাযায়, তার সঙ্গিনীর যে যৌনি ছাড়াও যৌনসংবেদী প্রায় পুরো একটা দেহই রয়েছে সে কথা ভুলে যায়।তাই সেক্সের শুরুতেই এমনকি বেশিরভাগ সমযই মুখ দিয়ে না হলে হাত দিয়ে ঘুরে ফিরে যৌনিটাকেই বেশি উত্তেজিত করার চেষ্টা করে। কিন্ত এর জন্য সঙ্গিনী পুরো সময়টাই অসহ্যবোধ করে কারন ছেলেদের মত শুধু লিঙ্গতে সুখ পেয়েই তারা এত সহজে যৌনত্তেজিত হতে পারে না। মেয়েরা তাদের সারা দেহেই তার সঙ্গীর আদর পেতে চায়।
আমাদের দেশে অনেক ছেলেই নারীদের যৌনি চুষতে চায় না। অনেক সময় স্ত্রী বা গার্লফ্রেন্ডের অনুরোধেবহুকষ্টে যৌনিতে মুখ দিলেও তা কোনমতে ঘেন্নারসাথে হাল্কা পাতলা চুষে। এমনটি কখনোই কর যাবে না। এভাবে হাল্কা করে চুষতে গেলে সঙ্গিনী সে স্পর্শ সঠিকভাবে পাওয়ার জন্য আরো উতলা হয়ে উঠে। ফলে সে স্বাদ পাওয়ার জন্য সে অন্যপুরুষের স্মরনাপন্ন হতে পারে। তাই একাজটা মনোযোগ দিয়ে করতে হবে।
সেক্সের সময় ছেলেদের একটা কথা সবসময়মনে রাখতে হবে যে মেয়েদের স্তন, যৌনি আর নিতম্ব এই তিনটিই তাদের একমাত্র যৌনকাতর স্থান নয়। ছেলেদের মূল যৌন কাতর অঙ্গ তাদের দেহের মাত্র কয়েকটি স্থানের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও মেয়েদের প্রায় পুরো দেহই স্পর্শকাতর।

Monday, October 9, 2017

সেক্স করার সময় পুরুষাঙ্গ রড এর মত স্ট্রং করতে চান? কোন ওষুধ খেতে হবে জানতে হলে পড়ুন !(ভিডিও দেখুন) !

বিয়ের আগে আমি প্রায়ই হস্তমৈথুন করতাম। আগের তুলনায় আমার পুরুষাঙ্গ শক্ত হত না। কিন্তু দুইদিন আগে সহবাসের আগে উত্তেজিত হয়ে আর আমার লিঙ্গ শক্ত হয়না এবং স্বাভাবিক ভাবেই আছে। আমি অনেক চেষ্টা করেও পুরুষাঙ্গ শক্ত করতে পারলাম না। আমার নববধূ আমার ঘরে পুরুষাঙ্গ শক্ত না হওয়ায় খুবিই হতাশায় এবং কি করব বুঝতে পারছি না। এখন আমার আত্মহত্যা ছাড়া আর কিছুই করার নেই।
উত্তরঃ মাত্র দুদিন লিঙ্গ শক্ত হয়নি বলে কেউ অবার আত্মহত্যার কথা ভাবে নাকি? ওসব বাজে চিন্তা ছাড়ুন, জীবন একটি মূল্যবান বস্তু, তাকে আত্মহত্যা করে খামোখা নষ্ট করবেন কেন?
১৮+ ছাড়া নিচের ছবিতে ক্লিক করবেন না... (বাচ্চারা দুরে থাকুন)
প্রথম প্রথম বিয়ের পর অনেকেরই লিঙ্গ শক্ত না হওয়া ; দৃঢ়তা ও উত্তেজনা সংক্রান্ত এমন সমস্যা হয়ে থাকে, লিঙ্গ শক্ত না হওয়া ; দৃঢ়তা না আসা ও উত্তেজনা না অঅসা নিয়ে অধিক চিন্তার কোন কারণ নেই। দুশ্চিন্তা পরিত্যাগ করে স্বাভাবিক জীবন যাপন করুন, দেখবেন সব ঠিক হয়ে যাবে।
ভিডিও টি দেখতে নিচে ক্লিক করুন..১৮+ (ছোটরা দুরে থাকুন)

ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন (ফ্রি)
লিঙ্গ উত্তেজিত হচ্ছেনা কেন এটা ভাবতে থাকলে তো আপনার মনে যৌন উত্তেজনাই আসবেনা।

যৌন মিলনে তৃপ্তি মেটে না ?? জেনে নিন সমাধান !

পুরুষের তুলনায় যৌন জীবনে নারীদের অসুখী হওয়ার হার অনেক বেশি। এমনকী নিজের ভালোবাসার পুরুষটির সঙ্গেও যৌন জীবন নিয়ে খুশি নন বহু নারী। মুখে প্রকাশ না করলেও মনের মধ্যে চাপা ক্ষোভ নিয়ে জীবন যাপন করেন টানা, মুখ ফুটে অনেকেই বলতে পারেন না যৌন জীবনে নিজের অতৃপ্তির কথা। কিন্তু এটা কেন? কেন বহু নারী রয়ে যান যৌন জীবনে অসুখী ও অতৃপ্ত?
১) ভুল ধারণা ও অজ্ঞতা: নারীদের যৌন জীবনে অসুখী রয়ে যাওয়ার মূল কারণ হচ্ছে পর্যাপ্ত যৌন শিক্ষার অভাব। যৌনতা যে কেবল সন্তান উৎপাদনের মাধ্যম নয়, নারী ও পুরুষ উভয়ের জন্যই একটি আনন্দের ব্যাপার, এই বিষয়টি সম্পর্কে আজও অজ্ঞ প্রচুর নারী। কী করতে হবে বা কীভাবে করলে আরও আনন্দময় হয়ে উঠবে যৌন মিলন, সেটা জানা নেই বলে তাঁরা রয়ে যান অসুখী ও অতৃপ্ত।
২) নিজেকে বুঝতে না পারা: আসলে কী চাইছেন, তার শরীর কোন জিনিসে কীভাবে সাড়া দিচ্ছে, কোন অঙ্গগুলো যৌনতার ক্ষেত্রে স্পর্শকাতর বা নিজের শরীরের চাহিদাগুলো কী কী ইত্যাদি বিষয়ে অজ্ঞতা বা বুঝতে না পারাও যৌন জীবনে অসুখী হবার একটি বড় কারণ।
১৮+ ছাড়া নিচের ছবিতে ক্লিক করবেন না... (বাচ্চারা দুরে থাকুন)
ভিডিও টি দেখতে নিচে ক্লিক করুন..১৮+ (ছোটরা দুরে থাকুন)

৩) কী চান সেটা বলতে না পারা: নিজেকে বুঝতে পারেন, নিজের চাহিদাও জানেন, কিন্তু মুখ ফুটে বলতে পারছেন না নিজের ভালো লাগা না লাগার কথা। নারীদের যৌন জীবনে অতৃপ্ত থাকার অন্তরালে এটা একটি বিশাল কারণ। এমনকি তিনি যে যৌন জীবনে সুখী নন, এটাও পুরুষ সঙ্গীকে মুখ ফুটে বলতে পারেন না অনেক নারী।
ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন (ফ্রি)
৪) লজ্জা ও সংকোচ: অনেক নারীই মনে করেন যে মেয়েদের যৌনতার কথা বলতে নেই, কিংবা মেয়েদের যৌনতার বিষয়টি নিয়ে কথা বল বা যৌন চাহিদা প্রদর্শন করার বিষয়টি খুবই লজ্জার। তাই মনের ইচ্ছা মনেই চেপে রাখেন তাঁরা।

সহবাসের সময় যে ৭টি কথায় স্ত্রীরা অধিক উত্তেজিত হয়….(ভিডিও সহ)

সহবাসের সময় যে ৭টি কথায় স্ত্রীরা অধিক উত্তেজিত হয়….(ভিডিও সহ)

সহবাসের সময় যে ৭টি কথায় স্ত্রীরা অধিক উত্তেজিত হয়….(ভিডিও সহ)
সহবাসের সময় যে ৭টি কথায় স্ত্রীরা অধিক উত্তেজিত হয়….(ভিডিও সহ)
১৮+ ছাড়া নিচের ছবিতে ক্লিক করবেন না... (বাচ্চারা দুরে থাকুন)

ভিডিও টি দেখতে নিচে ক্লিক করুন..১৮+ (ছোটরা দুরে থাকুন)

সহবাসের সময় যে ৭টি কথায় স্ত্রীরা অধিক উত্তেজিত হয়….(ভিডিও সহ)

ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন (ফ্রি)
সহবাসের সময় যে ৭টি কথায় স্ত্রীরা অধিক উত্তেজিত হয়….(ভিডিও সহ)

মেয়েদের সেক্স উঠলে তাদের আসলে কি করতে মন চায়? দেখুন ভিডিওতে

মেয়েদের সেক্স উঠলে তাঁদের ঠোঁট রক্তাভ হয়ে ওঠে। স্বাভাবিকের চাইতে অনেক বেশি লাল হয়ে যায় ঠোঁট। -নারীদের গালেও লালিমা দেখা দেয় উত্তেজনায়। অনেক্র একটু একটু ঘামেন, নিঃশ্বাস ভারী হয়ে আসে।
যৌন উত্তেজিত হলে শরীর খুবই স্পর্শকাতর হয়ে ওঠে। আপনার সামান্য স্পর্শেই শিহরিত হয়ে উঠবেন তিনি।
-যতই লাজুক স্বভাবের মেয়ে হোক না কেন, মেয়েদের সেক্স উঠলে হলে তিনি নিজেই আপনার কাছে আসবেন। হয়তো সরাসরি কিছু না বললেও আপনার কাছে এসে বসবেন, আলতো স্পর্শ করবেন, চুমু খাবেন, চোখের ইশারায় কথা বলবেন।
১৮+ ছাড়া নিচের ছবিতে ক্লিক করবেন না... (বাচ্চারা দুরে থাকুন)   
-প্রবল উত্তেজনার সময় যৌন মিলন কালে তিনি আপনাকে আঁচড়ে কামড়ে দেবেন। হাতের নখ আপনার শরীরে গেঁথে বসতে পারে, গলায় কানে ইত্যাদি স্থানে তিনি কামড় দেবেন উত্তেজনায়।

ভিডিও টি দেখতে নিচে ক্লিক করুন..১৮+ (ছোটরা দুরে থাকুন)

ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন (ফ্রি)
-এছাড়াও মিলনের সময় শীৎকারে বুঝবেন যে তিনি আনন্দ পাচ্ছেন ও প্রবল ভাবে উত্তেজিত। অনেকেই জোরে আওয়াজ করেন না, কিন্তু একটা মৃদু “আহ উহ” আওয়াজ হবেই।

স্কুলের নাম করে ঘন্টা চুক্তিতে হোস্টেলে এ কি করছে স্কুল-কলেজের ছাত্রীরা! (দেখুন ভিডিওতে)

স্কুলের নাম করে আপনার ছেলে মেয়েরা স্কুলের নামে এসব কি করছে দেখুন ভিডিওতে এই অল্প বয়স এর ছেলে মেয়ে সুযোগ পেলেই স্কুলের দোহায় দিয়ে কি সব করছে। ছিঃ ছিঃ ছিঃ
এখুনি সচেতন হন নয়তো সারাজীবন চোখের পানি ফেলতে হবে। সাবধান হতে একবার ভিডিওটি দেখুন। স্কুল পালিয়ে ছেলে – মেয়েরা কি করে আর কোথায় যায়। স্কুলে গিয়ে কি করছে দেখুন  ভিডিওতে –
স্কুলের নাম করে আপনার ছেলে মেয়েরা স্কুলের নামে এসব কি করছে দেখুন ভিডিওতে এই অল্প বয়স এর ছেলে মেয়ে সুযোগ পেলেই স্কুলের দোহায় দিয়ে কি সব করছে। ছিঃ ছিঃ ছিঃ